আজ, মঙ্গলবার


২৫শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১১ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম
শিরোনাম

দেবীগঞ্জে নির্বাচনে হেরে গিয়ে প্রতিপক্ষের উপর সন্ত্রাসী কায়দায় হামলা

রবিবার, ২৬ মে ২০২৪
দেবীগঞ্জে নির্বাচনে হেরে গিয়ে প্রতিপক্ষের উপর সন্ত্রাসী কায়দায় হামলা
সংবাদটি শেয়ার করুন....

বিমল কুমার রায়, দেবীগঞ্জ(পঞ্চগড়) প্রতিনিধি:

পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে হেরে গিয়ে প্রতিপক্ষকে সন্ত্রাসী কায়দায় মারধর করলেন উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী রহিমুল ইসলাম বুলবুল ও তার লোকজন।

গত ২১ মে/২০২৪ ইং তারিখে ২য় ধাপের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করে পরাজিত হয়েছেন উপজেলা বিএনপির সদ্য বহিষ্কৃত আহবায়ক রহিমুল ইসলাম বুলবুল। দলীয় সিদ্ধান্ত উপেক্ষা করে নির্বাচন করায় গত ৪ মে তাকে বহিষ্কার করে বিএনপির হাইকমান্ড।

উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের পরদিন (২২ মে) সকাল ১১ টার দিকে উপজেলার সোনাহার বাজার ও নূরুর বাজার এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। হামলায় ইউনিয়ন বিএনপির সহ-সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম, আবু তৈয়ব ও সাজু প্রধান আহত হন। জাহাঙ্গীর ও তৈয়ব দেবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছে এবং গুরুতর আহত সাজুকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বংপুর মেডিকেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

এই ঘটনায় বুলবুল ও টুটুলসহ ৭ জনকে আসামী করে থানায় এজাহার দায়ের করেছেন ভুক্তভোগী জাহাঙ্গীর হোসেন। তবে ২৪ মে পর্যন্ত মামলা নথিভুক্ত হয়নি বলে জানা গেছে।

নির্বাচনে সোনাহার ইউনিয়ন বিএনপির একটি পক্ষ রহিমুল ইসলাম বুলবুলের পক্ষে নির্বাচনের প্রচার-প্রচারণায় ছিলেন। আরেকটি পক্ষ বিএনপির কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ভোট বর্জন করে এবং ভোটদানের বিপক্ষে প্রচারণা চালায়। ঐ ক্ষোভ থেকেই হামলার ঘটনা ঘটেছে বলে জানায় স্থানীয়রা।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী সোবহান বলেন, বুধবার সকালে জাহাঙ্গীর হোসেন কেনাকাটার উদ্দেশ্যে তার দোকানে আসার কিছুক্ষন পরে বুলবুল ও শাহেদ আসেন সেখানে। বুলবুলের নির্দেশে জাহাঙ্গীরকে টেনে হিচড়ে দোকান থেকে বের করে মারপিট করেন শাহেদ। এর কিছুক্ষণ পরে সোনাহার বাজারে আবু তৈয়বের দোকানে যায় বুলবুল ও তার লোকজন। সেখানে গিয়ে আবু তৈয়ব ও সাজু প্রধান নামে অপর দুইজনকে মারধর করেন তারা।

মারামারির ঘটনায় বুলবুলের ভাই আশিকুর রহমান টুটুলও হাতে চোট পেয়েছেন বলে খবর পাওয়া গেছে। তবে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, মোটরসাইকেলের চেইন দিয়ে জাহাঙ্গীরকে মারধরের সময় নিজের হাতে চোট পায় টুটুল।

এবিষয়ে রহিমুল ইসলাম বুলবুলের সাথে যোগাযোগ করলে বক্তব্য দিতে অস্বীকার করেন।

দেবীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সরকার ইফতেখারুল মোকাদ্দেম বলেন, ইতিমধ্যে আমরা অভিযোগ পেয়েছি এবং অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ১০:২৪ পূর্বাহ্ণ | রবিবার, ২৬ মে ২০২৪

দৈনিক গণবার্তা |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সম্পাদকঃ শাহিন হোসেন

বিপিএল ভবন (৩য় তলা ) ৮৯, আরামবাগ, মতিঝিল, ঢাকা ।

মোবাইল : ০১৭১৫১১২৯৫৬ ।

ফোন: ০২-২২৪৪০০১৭৪ ।

ই-মেইল: ganobartabd@gmail.com