আজ, বৃহস্পতিবার


২৫শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১০ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নির্বাচনী সহিংসতার ৬০০ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের, গ্রেফতার ২

বুধবার, ২২ মে ২০২৪
নির্বাচনী সহিংসতার ৬০০ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের, গ্রেফতার ২
সংবাদটি শেয়ার করুন....

বিমল কুমার রায়, দেবীগঞ্জ(পঞ্চগড়) প্রতিনিধি:

পঞ্চগড় জেলার দেবীগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনী ফলাফলকে কেন্দ্র করে সহিংসতার ঘটনা ঘটেছে। এতে ৩টি সরকারি গাড়ি ও ৮-১০টি মটরসাইকেল ভাঙ্গচুর করা হয়। একই সাথে ভোটগ্রহন কর্মকর্তাকে লক্ষ্য করে ভোটকক্ষের দিকে পাথর ছুঁড়ে মারা হয়েছে। এই ঘটনায় ওই কেন্দ্রের দায়িত্বরত প্রিজাইডিং অফিসার উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা গোলাম আজম বাদী হয়ে দেবীগঞ্জ থানায় দুইজনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত ৫০০-৬০০ জনের বিরুদ্ধে এজাহার জমা দেন।

সহিংসতার ঘটনাটি ঘটে শালডাঙ্গা  ইউনিয়নের দামানীগ্রাম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে। সহিংসতায় জড়িতদের মধ্যে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে শালডাঙ্গা ইউনিয়নের বন্দীগ্রাম এলাকার রাজকুমার রায়ের ছেলে মিঠুন রায় ও  দামিনীগ্রাম এলাকার দীনেশ চন্দ্র দায়ের ছেলে দীনবন্ধু রায়কে আটক করে। উভয়ই হেলিকপ্টার প্রতীকের কর্মী ছিল মর্মে সত্যতা নিশ্চিত করা হয়েছে। এই ঘটনায় আহতরা হন-নির্বাচনের দায়িত্বে থাকা মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব আবু আউয়াল, ওই কেন্দ্রের সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার কাদেরুল ইসলাম, উপ-সচিবের সহকারী জাহাঙ্গীর আলম, গাড়িচালক আবু বক্কর সিদ্দিক, আটোয়ারী থানার উপ-পরিদর্শক বুলু মিয়া, গোয়েন্দা পুলিশের কনস্টেবল আব্দুল বারী সহ আরো বেশ কয়েকজন।

মামলার এজাহার এবং কেন্দ্রে দায়িত্বে থাকা আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর দুই নারী সদস্য ও এক সহকারী প্রিজাইডিং অফিসারের সাক্ষাৎকার সূত্রে জানা যায়, “বিকেল ৫টার দিকেও ভোট কক্ষে ভোট গণনা চলেছিল, তখন থেকে বাইরে উত্তেজনা শুরু হতে থাকে। ফলাফলে যেন কোন ত্রুটি এড়াতে একাধিকবার ভোট গণনা করে সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টা-সাতটার দিকে যখন ফল ঘোষণা করা হয়। তখন হেলিকপ্টার প্রতীকের কর্মী-সমর্থকরা আরো ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেন।  হেলিকপ্টার প্রতীক আরো বেশি ভোট পাওয়ার কথা ছিল বলে তারা দাবি করেন। যদিও কেন্দ্রটিতে হেলিকপ্টার প্রতীক বিজয়ী হয়েছিল। হঠাৎ কিছু বুঝে উঠার আগে ভোট কক্ষের দিকে ইট পাটকেল ছুঁড়তে থাকেন কর্মী-সমর্থকরা। সেই সাথে বাইরে থাকা সরকারি গাড়ি ও মটরসাইকেলে ভাঙ্গচুর চালাতে থাকে ক্ষুব্ধ কর্মী সমর্থকরা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা আরো বলেন, ফলাফল ঘোষণার পূর্বে সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে ফল ঘোষণা করা হবে বলে বাইরে প্রচার করা হয়। ফলে পরিস্থিতি আরো উত্তপ্ত হয়ে উঠে। মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে পঞ্চগড়ের পুলিশ সুপার এস. এম. সিরাজুল হুদা বলেন, ভিডিও ফুটেজ ও বিভিন্ন তথ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে ঘটনার সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে জরুরি আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এই ঘটনায় নিরপরাধ কাউকে হয়রানি করা হবে না বলেও পুলিশ সুপার আশ্বস্ত করেন।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ২:২২ অপরাহ্ণ | বুধবার, ২২ মে ২০২৪

দৈনিক গণবার্তা |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সম্পাদকঃ শাহিন হোসেন

বিপিএল ভবন (৩য় তলা ) ৮৯, আরামবাগ, মতিঝিল, ঢাকা ।

মোবাইল : ০১৭১৫১১২৯৫৬ ।

ফোন: ০২-২২৪৪০০১৭৪ ।

ই-মেইল: ganobartabd@gmail.com