আজ, সোমবার


২০শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
শিরোনাম
শিরোনাম

কালীগঞ্জে জোরপূর্বক সংখ্যালগু পরিবারের জমি দখলের অভিযোগ

সোমবার, ১৮ মার্চ ২০২৪
কালীগঞ্জে জোরপূর্বক সংখ্যালগু পরিবারের জমি দখলের অভিযোগ
সংবাদটি শেয়ার করুন....
মোঃ রায়হান মাহামুদ: গাজীপুরের কালীগঞ্জে সংখ্যালগু পরিবারের উপর হামলা ও নির্যাতন করে জোরপূর্বক জমি দখলের অভিযোগ পাওয়া গেছে ঘড়জামাই আফতাব উদ্দিন ও নাগকাটা খায়রুল গংয়ের বিরুদ্ধে। আদালতে মামলা। সরেজমিনে জানা যায়, উপজেলারধীন জামালপুর ইউনিয়নের চুপাইর গ্রামের মৃত নবীন চন্দ্র দেবনাথের ছেলে বীরেন্দ্র দেবনাথ ও তার স্ত্রী চয়নিকা দেবনাথ চুপাইর মৌজার আর.এস ১৯৭ ও ৪৬ নং খতিয়ানের আর.এস ১০৬০, ১০৭০, ১০৮৯ ও ১০৯৫ নং দাগে (৩০+৪৮+১৩+২৭)= ১১৮ শতাংশ হতে (৪৩.৩৩+১৩.৬২)= ৫৬.৯৫ শতাংশ জমি পৈত্রিক ও ক্রয় সূত্রে মালিক হয়ে শান্তিপূর্ণ ভোগ দখলে থাকিয়া নিজ নামে নামজারী ও জমাভাগ করেন। হোল্ডিং নং ৪৯৩, ৭৪৩ ও ৭৬৬ খুলিয়া নিয়মিত হালসন ১৪৩০ পর্যন্ত খাজনাদি পরিশোধ করেন। এ জমি নিয়ে খাইরুল গং কালীগঞ্জ এসিল্যান্ড অফিসে বিবিধ মোকদ্দমা করেন। কাগজপত্র পর্যালোচনা করিয়া উক্ত মোকদ্দমায় বীরেন্দ্রের পক্ষে রায় প্রদান করেন। পরে খাইরুল গং এ বিষয়ে গাজীপুর এডিসি (রাজস্ব) অফিসে রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করলে সেখান থেকেও বীরেন্দ্রের পক্ষে রায় প্রদান করেন। পরে গাজীপুর ৫ম জর্জ আদালতে এ জমির বিষয়ে মামলা করলে আদালত দীর্ঘ শুনানীকালে কাগজপত্র পর্যালোচনা করে বীরেন্দ্রের পক্ষে রায় প্রদান করেন।
উক্ত জমি অন্যায় ও অবৈধ ভাবে জোরপূর্বক দখলের উদ্দেশ্যে উপজেলার জামালপুর ইউনিয়নের চুপাইর গ্রামের মৃত সাহাজ উদ্দিনের ছেলে ভূমিদস্যু দুর্দান্ত নাগকাটা খাইরুল ইসলাম, কামরুল ইসলাম, সাইফুল ইসলাম ও ঘড়জামাই আফতাব উদ্দিন গত ২৬ ফেব্রুয়ারী সকালে তাদের সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়া বীরেন্দ্র দেবনাথের পুকুরের পাড় ভাঙ্গিয়া ভিতরে প্রবেশ করেন। বীরেন্দ্র তাদের বাধা দিলে খাইরুল গং তাকে হত্যার হুমকি প্রদান করে।
এ ঘটনায় বীরেন্দ্র বাদী হয়ে কালীগঞ্জ থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে বাধা দিলেও ভূমিদস্যু খাইরুল গং তাদের দখল কাজ চালিয়ে যান। পরে গত ২ মার্চ তারিখে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয় ও ৪ মার্চ ২০২৪ তারিখ সহকারী কমিশনার (ভূমি) এর কার্যালয়ে জমি বেদখল মুক্ত করার জন্য আবেদন করেন। তাতে ক্ষীপ্ত হয়ে খায়রুল গং সংখ্যালগু বীরেন্দ্র দেবনাথের উপর হামলা ও নির্যাতন চালায়। পরে বীরেন্দ্র দেবনাথ নিরুপায় হয়ে গত ১১ মার্চ গাজীপুর বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রট আদালতে পি-২০৫/২৪ দায়ের করেন। পরবর্তীতে কালীগঞ্জ থানা পুলিশ উক্ত জমিতে উভয় পক্ষকে সকল স্থাপনা সহ নির্মান কাজ হতে বিরত থাকার জন্য নোটিশ প্রদান করেন। বাদী পক্ষ বিরত থাকলেও ভূমিদস্যু খাইরুল গং জোর পূর্বক জমিতে অনধিকার প্রবেশ করিয়া বিজ্ঞ আদালতের আদেশ অমান্য করিয়া নালিশী জমির পাড় (মাটি) কাটিয়া ব্যাপক ক্ষতি সাধন করে।
এ বিষয়ে সংখ্যালগু বীরেন্দ্র দেবনাথ বলেন, আমার পৈত্রিক ও ক্রয়কৃত জমি নিজ নামে নামজারী ও জমাভাগ করে খাজনাদি পরিশোধ করিয়া যুগযুগ ধরে শান্তি পূর্ণভাবে ভোগ দখলে আছি। এই জমি নিয়ে আমার পক্ষে এসিল্যান্ড অফিসের রায়, এডিসি অফিসের আপিলের রায় ও ৫ম জর্জ আদালতের রায় আছে। তার পরও সন্ত্রাসী খাইরুল গং জোরপূর্বক জমি দখলে নেয়। তাদের বাধা দিলে তারা আমাকে হত্যার হুমকি দেয়। আমি নিরাপত্তা চেয়ে কালীগঞ্জ থানা, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয় ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) বরাবরে আবেদন করি। এতে তারা ক্ষীপ্ত হয়ে আমাকে বিভিন্ন প্রকার ভয়ভীতি প্রদান করে। পরিশেষে গত ১১ মার্চ গাজীপুর বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রট আদালতে পি-২০৫/২৪ দায়ের করি। খাইরুল গং ভূমিদস্যু, দুর্দান্ত ও সন্ত্রাসী প্রকৃতির লোক। তারা যে কোন সময় আমাকে মেরে ফেলতে পারে।
এ বিষয়ে অভিযুক্ত নাগকাটা খাইরুল বলেন, আমি জমি দখল করেছি তাতে আপনাদের কি? আপনাদের কাছে জবাব দিতে হবে? এ বিষয়ে আপনাদের সাথে কথা বলতে ইচ্ছুক না। আরেক অভিযুক্ত ঘরজামাই আফতাব উদ্দিন বলেন, এটা আমাদের জমি ছিল। এতদিন দখল করি নাই। এখন দখল করছি। আপনারা কাগজপত্র নিয়ে আদালতে যান। এ বিষয়ে জামালপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক মেম্বার মোঃ নুরুল ইসলাম বলেন, এটা বীরেন্দ্রর পৈত্রিক ও ক্রয়কৃত জমি। আমরা দেখেছি এই জমি বীরেন্দ্রর নামে খারিজ করা আছে। তার পক্ষে এসিল্যান্ড অফিসের রায়, এডিসি অফিসের আপিলের রায় ও ৫ম জর্জ আদালতের রায় আছে। খাইরুল গংদের কোন কাগজপত্র নেই। তারা জোরে বীরেন্দ্রর জমি দখল করছে।
এ বিষয়ে জামালপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মোঃ মাহবুবুর রহমান ফারুক মাষ্টার বলেন, এ জমি সংক্রান্ত বিষয়ে আমি একাধিক বার বসেছি। আমি যা পেয়েছি জমির পর্চা, দলিল, খারিজ, এডিসি মহোদয়ের আপিলের রায় ও গাজীপুর ৫ম সহকারী জর্জ আদালতের রায় সব বীরেন্দ্রের পক্ষে। খাইরুল গং এই সকল রায় বাতিল করে নিজেদের নামে নামজারী করে আসতে পরামর্শ দিয়েছি। তারা না শুনে বারং বারই ভিন্ন পথে এসে বীরেন্দ্রর জমি জোরপূর্বক দখল করে নেয়।
এ বিষয়ে কালীগঞ্জ থানার উপপুলিশ পরিদর্শক মো. মশিউর রহমান বলেন, চুপাইর গ্রামের বীরেন্দ্র দেবনাথ বাদী হয়ে প্রতিবেশী আফতাব উদ্দিন ও খাইরুল গংদের বিরুদ্ধে গাজীপুর বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রট আদালতে পি-২০৫/২৪ দায়ের করেছেন। আদালতের নির্দেশ অনুযায়ী নালিশী জমিতে শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখার জন্য বাদী ও বিবাদীকে নোটিশ প্রদান করা হয়েছে।
Facebook Comments Box
advertisement

Posted ১:১১ অপরাহ্ণ | সোমবার, ১৮ মার্চ ২০২৪

দৈনিক গণবার্তা |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সম্পাদকঃ শাহিন হোসেন

বিপিএল ভবন (৩য় তলা ) ৮৯, আরামবাগ, মতিঝিল, ঢাকা ।

মোবাইল : ০১৭১৫১১২৯৫৬ ।

ফোন: ০২-২২৪৪০০১৭৪ ।

ই-মেইল: ganobartabd@gmail.com