বৃহস্পতিবার, ৯ ডিসেম্বর ২০২১, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, বিকাল ৫:০৩

বাবুগঞ্জের বাহেরচর বাজারে নজিরবিহীন নির্বাচন উপহার দিলেন ছাত্রনেতা সুজন আহমেদ

বাবুগঞ্জ প্রতিনিধি ॥ বাবুগঞ্জে নজিরবিহীন পুলিশি নিরাপত্তায় ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে ঐতিহ্যবাহী বাহেরচর বাজার ব্যবসায়ী সমিতির নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। জাতীয় নির্বাচনের আদলে নির্বাচন পরিচালনা কমিটির প্রধান উপদেষ্টা ও বাংলাদেশ ছাত্রমৈত্রী কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি জননন্দিত ছাত্রনেতা সুজন আহমেদ এর নেতৃত্বে প্রায় এক প্লাটুন পুলিশের নিরাপত্তা বেষ্টনীর মাঝে বুধবার (৩০ সেপ্টেম্বর) ওই দ্বি-বার্ষিক নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়।
বাহেরচর বাজার ব্যবসায়ী সমিতির ওই নির্বাচনে ৪০ ভোট পেয়ে সভাপতি নির্বাচিত হন মোঃ শাহ আলম। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মোবারক হোসেন সরদার পান ৩৩ ভোট। এদিকে ৪৩ ভোট পেয়ে বজলুর রহমান সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সাইফুল ইসলাম সোহাগ পান ২৩ ভোট। সমিতির ১১টি পদের বিপরীতে ২২ জন প্রার্থী নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেন।
বাহেরচর বাজার ব্যবসায়ী সমিতির অন্যান্য পদে বিজয়ীরা হলেন, সহ-সভাপতি শহিদ সিকদার (৪৪ ভোট), সহ-সাধারণ সম্পাদক আবদুল হক খান (৪৫ ভোট), কোষাধ্যক্ষ ফারুক হোসেন মৃধা (৪৮ ভোট), দপ্তর সম্পাদক আবদুল মান্নান ফরাজি (৩৮ ভোট), প্রচার সম্পাদক নজরুল ইসলাম (৪২ ভোট), কার্যনির্বাহী সদস্য মাসুম হোসেন (৫৭ ভোট), আলতাফ বেপারী (৫৬ ভোট), শাহজাহান হাওলাদার (৪৬ ভোট), জাকির হোসেন (৪২ ভোট) এবং মোঃ কাইউম (৪২ ভোট)।
জাতীয় নির্বাচনের মতোই বুধবার সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত একটানা ভোটগ্রহণ চলে। নির্বাচনে ৭৪ জন ভোটারের মধ্যে ৭৩ জন তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। ভোটগ্রহণ শেষে আনুষ্ঠানিকভাবে ফলাফল ঘোষণা করেন নির্বাচনের প্রিসাইডিং অফিসার বাহেরচর আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ ইউসুফ আলী।
ফলাফল ঘোষণা উপলক্ষে নির্বাচন পরিচালনা কমিটির প্রধান উপদেষ্টা ও বাংলাদেশ ছাত্রমৈত্রীর কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি সুজন আহমেদ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বাবুগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মিজানুর রহমান,উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি মকিতুর রহমান কিসলু, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আবদুল মান্নান হাওলাদার, ওসি (তদন্ত) মানবেন্দ্র বালো এবং জাতীয় পার্টির সম্পাদক ওমর ফারুক বাবুল আকন।

বাবুগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ মিজানুর রহমান বলেন, ‘বাহেরচর বাজার ব্যবসায়ী সমিতির নির্বাচনে অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষভাবে ভোটগ্রহণের স্বার্থে বরিশাল থেকে অতিরিক্ত প্রায় এক প্লাটুন পুলিশ এনে মোতায়েন করা হয়েছিল। এই নির্বাচনকে সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ করার চ্যালেঞ্জ নিয়েছিলেন বাংলাদেশ ছাত্রমৈত্রী কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি সুজন আহমেদ।নজিরবিহীন এমন নির্বাচনের আয়োজন করা এবং নিরপেক্ষ ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন অনুষ্ঠানে সর্বাত্মক সহযোগিতা করার ক্ষেত্রে পুলিশের পাশাপাশি ছাত্রনেতা সুজন আহমেদ প্রশংসনীয় ভূমিকা পালন করেছেন।’
উল্লেখ্য, বাহেরচর বাজার ব্যবসায়ী সমিতির মাত্র ৭৪ জন ভোটারের ওই নির্বাচন হলেও এতে জাতীয় নির্বাচনের মতোই প্রায় ৩ মাস আগে তফসিল ঘোষণা এবং মনোনয়ন পত্র বিক্রি ও প্রত্যাহারসহ মাসাধিককাল ধরে দিনরাত প্রচার-প্রচারণায় সরগরম হয়ে উঠেছিল গোটা বাহেরচর এলাকা। পোস্টার-ব্যানারে ছেয়ে গিয়েছিল বাহেরচর বাজার। নির্বাচনে মনোনীত ৫ সদস্যদের নির্বাচন কমিশনের মাধ্যমে ভোটার তালিকা প্রণয়ন, প্রতীক বরাদ্দ, ব্যালট পেপার ছাপানো, ব্যালট বাক্স, সিল এবং ভোটকক্ষে দুইটি বুথ নির্মাণসহ নিরপেক্ষ ভোটগ্রহণের জন্য সবধরনের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করা হয়। ৩০ সেপ্টেম্বরের ওই নির্বাচনে ১১টি পদের বিপরীতে ২২ জন প্রার্থী অংশ নিলেও সেখানে তাদের কয়েক হাজার কর্মী-সমর্থকদের সমাগম ঘটে। ফলে নির্বাচনে গোলযোগের আশংকায় বাবুগঞ্জ থানার দুই ওসির নেতৃত্বে এক প্লাটুন পুলিশ মোতায়েন করা হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন...

Developed by: Engineer BD Network