রবিবার, ৩ জুলাই ২০২২, ১৯ আষাঢ় ১৪২৯, রাত ১১:১৫
শিরোনাম :
আইডিআরএ চেয়ারম্যানকে বাংলাদেশ ন্যাশনাল ইন্স্যুরেন্সের ফুলেল শুভেচ্ছা করোনায় মৃত্যু কমলেও বেড়েছে শনাক্তের হার সিলেটে ক্ষতিগ্রস্ত ঘরবাড়ি মেরামতে প্রধানমন্ত্রীর পাঁচ কোটি টাকা অনুদান আওয়ামী লীগ জনকল্যাণের রাজনীতি করে : ওবায়দুল কাদের পদ্মা সেতু নির্মাণের সব কৃতিত্ব বাংলাদেশের জনগণের : প্রধানমন্ত্রী আওয়ামী লীগ নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করতে চায় : প্রধানমন্ত্রী আইডিআরএ চেয়ারম্যানকে প্রাইম লাইফের ফুলেল শুভেচ্ছা আইডিআরএ চেয়ারম্যান ও সদস্যবৃন্দকে বেঙ্গল ইসলামি লাইফের শুভেচ্ছা বাংলাদেশ ন্যাশনাল ইন্স্যুরেন্স’র ২৬তম এজিএম অনুষ্ঠিত ওয়ান ব্যাংকের আল নূর দ্বৈত মুদ্রা ডেবিট কার্ড উদ্বোধন
Logo

কন্টিনেন্টাল ইন্স্যুরেন্সের এজিএম : ১২ শতাংশ লভ্যাংশ অনুমোদন



কন্টিনেন্টাল ইন্স্যুরেন্সের এজিএম : ১২ শতাংশ লভ্যাংশ অনুমোদন
https://ganobarta.com/archives/7386

স্টাফ রিপোটার : কন্টিনেন্টাল ইন্স্যুরেন্স লিমিটেডের ২২তম বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত ২০ জুন ভার্চুয়াল প্ল্যাটফর্মে আয়োজিত সভায় সভাপতিত্ব করেন কোম্পানি চেয়ারম্যান এ কে এম আজিজুর রহমান। এ সময় পরিচালনা পর্ষদের অন্যান্য সদস্যর মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বুলবুল জয়নব আক্তার, ডলি ইকবাল, কে এম আলমগীর, তেহসিন রশীদ, সাঈদ আদিব আশফাক উদ্দিন, সালমান হাবিব, আবরার রহমান খান, ইসনাদ ইকবাল স্বতন্ত্র পরিচালক নুসরাত হাফিজ, বিগ্রে. জে. (অব.) মোহাম্মদ আব্দুল হালিম।

অন্যান্যোর মধ্যে কোম্পানির মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা হাসান তারেক, কোম্পানির চিফ ফাইন্যান্সিয়াল অফিসার মো. আব্দুল মালেক ও সাধারণ বিনিয়োগকারীগণ। সভা সঞ্চালনা করেন কোম্পানি সচিব আতাউর রহমান।

সভায় ৩১ ডিসেম্বর ২০২১ সমাপ্ত বছরের বার্ষিক আর্থিক প্রতিবেদনের উপর আলোচনা রাখেন পরিচালনা পর্ষদ ও বিনিয়োগকারীরা। এতে দেখা যায়, আলোচ্য বছরে কোম্পানির গ্রস প্রিমিয়াম চার কোটি ৯৫ লাখ টাকা বৃদ্ধি পেয়ে ৬১ কোটি ৯২ লাখ টাকা হয়েছে, যা ২০২০ সালে ছিল ৫৬ কোটি ৯৬ লাখ টাকা। এর মধ্যে নিট প্রিমিয়ামের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ২৭ কোটি ২১ লাখ টাকা, যা আগের বছর ছিল ৩২ কোটি ১৪লাখ টাকা। তবে সমাপ্ত বছরে প্রতিষ্ঠানটি অবলিখন মুনাফা কিছুটা কমেছে। আলোচ্য ২০২১ সালে অবলিখন মুনাফা দাঁড়িয়েছে ৮ কোটি ২৪ লাখ টাকা, যা আগের বছর ছিল নয় কোটি ২৮ লাখ টাকা। দাবি পরিশোধের পরিমাণ আগের চেয়ে কিছুটা বেড়েছে। আলোচ্য বছরে দাবি পরিশোধ করেছে সাত কোটি ৪৭ লাখ টাকা, যা আগের বছর ছিল দুই কোটি ৪৫ লাখ টাকা।

আবার মোট সম্পদ ও শেয়ারহোল্ডার ইক্যুয়িটির ক্ষেত্রেও আগের বছরের তুলনায় অনেকাংশে এগিয়ে গেছে। আলোচ্য বছরে মোট সম্পদের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ১২৫ কোটি ৪২ লাখ টাকা, যা ২০২০ সালে ছিল ১১৪ কোটি ৫১ লাখ টাকা এবং শেয়ারহোল্ডার ইক্যুয়িটির পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৯৬ কোটি আট লাখ টাকায়, যা আগের বছর ছিল ৯২ কোটি ৪৮ লাখ টাকা। একবছরে প্রতিষ্ঠানটির মোট সম্পদ ও শেয়ারহোল্ডার ইক্যুয়িটি বেড়েছে যথাক্রমে ১০ কোটি ৯০ লাখ টাকা এবং তিন কোটি ৬০ লাখ টাকার বেশি।

বিদায়ী বছরে এমন ব্যবসায়িক ধারাবাহিকতায় প্রতিষ্ঠানটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) এবং শেয়ারপ্রতি সম্পদ (এনএভি) ২০২০ সালের তুলনায় বেড়েছে। আলোচ্য বছরে ইপিএস দাঁড়িয়েছে ১.৫১ টাকা, যা আগের বছর ছিল ১.২৯ টাকা এবং এনএভি দাঁড়িয়েছে ২০.৪৩ টাকা, যা ২০২০ সালে ছিল ১৯.০৮ টাকা। বছর সমাপান্তে বিনিয়োগকারীদের জন্য সর্বোচ্চ ১২ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ অনুমোদন করে কোম্পানির পরিচালনা পর্ষদ। বার্ষিক সাধারণ সভার অন্যান্য আলোচ্যসূচি বিনিয়োগকারীদের সম্মতিক্রমে অনুমোদন লাভ করে।

সংবাদটি শেয়ার করুন...

Developed by: Engineer BD Network