শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ৩১ আশ্বিন ১৪২৮, সকাল ১০:৪৪
শিরোনাম :
বঙ্গবন্ধুর জন্ম হয়েছিলো বলেই আমরা বাংলাদেশ পেয়েছি – ড. হারুন অর রশিদ বিশ্বাস মুলাদীতে শারদীয় দুর্গোৎসবে আইন শৃঙ্খলা রক্ষায় পুলিশের মতবিনিময় খুলনায় স্বদেশ ইসলামী লাইফের বিশেষ উন্নয়ন সভা ঢাকা এঞ্জেল লায়ন্স ক্লাবের উদ্যোগে বৃক্ষরোপন, খাদ্য ও মাস্ক বিতরন ৪ শতাংশ সুদে ঋণ দেবে লংকাবাংলা ফাইন্যান্স টাঙ্গাইল জেলা যুবলীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত মার্কেন্টাইল ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্স এর রাজশাহী বিভাগের উন্নয়ন সভা এনআরবি ইসলামিক লাইফের ব্যবসা উন্নয়ন সভা অনুষ্ঠিত মুজিববর্ষ বধির দাবা প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ এনআরবি গ্লোবাল লাইফ ইন্স্যুরেন্সের ৮ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত

মুলাদীতে বৃদ্ধা সৎ মাকে হত্যার চেষ্টা

মুলাদী (বরিশাল) প্রতিনিধি ॥ মুলাদীতে আলেয়া বেগম (৫৫) নামের এক বৃদ্ধা মাকে হত্যার চেষ্টা চালিয়েছে সৎ সন্তানেরা। গত ১৭জুন রাতে উপজেলার সীমান্তবর্তী চরপদ্মা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আলেয়া বেগম সফিপুর ইউনিয়নের চরপদ্মা গ্রামের খালেক হাওলাদারের ২য় স্ত্রী। খালেক হাওলাদারের ১ম স্ত্রীর সন্তানেরা আলেয়া বেগমকে হত্যার চেষ্টা চালায়।

জানাগেছে গরীব অসহায় আলেয়া বেগমের প্রথম স্বামী মারা যাওয়ার পর খালেক হাওলাদারের সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। কিন্তু খালেক হাওলাদারের ১ম স্ত্রীর ৫ সন্তান বিষয়টি মেনে নিতে পারেনি। তারা আলেয়া বেগমকে দীর্ঘ দিন ধরে নির্যাতন চালিয়ে আসছিলো।

আলেয়া বেগমের প্রতিবেশি ফাহিমা বেগম জানান গত ১৭ জুন ১১ টার দিকে পাশ্ববর্তী বাড়িতে ডিম কিনতে যাওয়ার পথে বৃদ্ধা আলেয়া বেগমকে রক্তাক্ত ও অচেতন অবস্থায় দেখতে পেয়ে বাড়ির লোকজনকে খোঁজাখুজি করেন। পরে কাউকে না পেয়ে তিনি স্থানীয়দের সহযোগিতায় আলেয়া বেগমকে উদ্ধার করে মুলাদী হাসপাতালে ভর্তি করেন। হাসপাতালে নিয়ে আসার পথে স্বামী খালেক হাওলাদার বাঁধা প্রদান করেছিলেন বলেও অভিযোগ রয়েছে। কিন্তু স্থানীয়দের তোপের মুখে তিনি পিছু হটেন।

স্থানীয়রা জানান আলেয়া বেগমের স্বামীর ১ম স্ত্রীর সন্তানেরা তাকে মারধর করে মৃত ভেবে ফেলে রেখে পালিয়ে গেছে। তাকে উদ্ধারের পরে দয়াশীল লোকজন ও মুলাদী হাসপাতালের জরুরী বিভাগের সহযোগিতায় আলেয়া বেগমের চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন...

Developed by: Engineer BD Network