মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩ আশ্বিন ১৪২৮, দুপুর ২:২৪
শিরোনাম :
৪ শতাংশ সুদে ঋণ দেবে লংকাবাংলা ফাইন্যান্স টাঙ্গাইল জেলা যুবলীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত মার্কেন্টাইল ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্স এর রাজশাহী বিভাগের উন্নয়ন সভা এনআরবি ইসলামিক লাইফের ব্যবসা উন্নয়ন সভা অনুষ্ঠিত মুজিববর্ষ বধির দাবা প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ এনআরবি গ্লোবাল লাইফ ইন্স্যুরেন্সের ৮ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত উইংস গ্রুপ ও গার্ডিয়ান লাইফের মধ্যে গ্রুপ ইন্স্যুরেন্স চুক্তি স্বাক্ষর সেরা ব্যাংকের পুরস্কার পেল এনআরবিসি ব্যাংক ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তাদের ৪ শতাংশ সুদে ঋণ দেবে এনআরবিসি ব্যাংক মার্কেন্টাইল লাইফ ইন্স্যুরেন্সের মাগুরা সার্ভিস সেন্টারের উদ্বোধন

কালকিনিতে মোবাইল কিনে না দেয়ায় কলেজ ছাত্রীর আত্মহত্যা

সঞ্জয় সরকার : মোবাইল ফোন কিনে না দেয়ায় পরিবারের লোকজনের সঙ্গে অভিমান করে মাদারীপুরের কালকিনিতে সাবিকুন্নাহার জেবিন-(১৯) নামে এক কলেজছাত্রী আত্মহত্যা করেছে। খবর পেয়ে থানা পুলিশ ওই কলেজছাত্রীর লাশ উদ্ধার করে। নিহত কলেজছাত্রী বরিশালের গৌরনদী বালিকা স্কুল এ্যান্ড কলেজ থেকে চলতি বছরে এইচএসসি পাস করেন। আজ বুধবার সকালে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ, ভূক্তভোগী পরিবার ও এলাকা সুত্রে জানা গেছে, উপজেলার রমজানপুর ইউনিয়নের চরপালরদী গ্রামের মোঃ খোকন হাওলাদারের কলেজ পড়ুয়া ছাত্রী সাবিকুন্নাহার জেবিন কিছুদিন আগে তার বাবা-মার কাছে একটি মোবাইল ফোন কিনে দেয়ার জন্য বায়না ধরেন। কিন্তু কিছুদিন পার হলেও তাকে তার বাবা-মা তাকে মোবাইল কিনে দেন নাই। জেবিন প্রতিদিনের মত মঙ্গলবার দিবাগত রাতে খানা খেয়ে তার রুমে একাই বিছানায় শুয়ে পরেন। কিন্তু রাত ১২টার দিকে তার বাবা খোকন হাওলাদার প্রকৃতির ডাঁকে সাঁরা দিতে উঠে দেখেন তার মেয়ে জেবিন রুমের ফ্যানের সাথে ওড়না দিয়ে আত্মহত্যা করেন। মেয়ের লাশ ঝুলন্ত অবস্থায় দেখে তার বাবা-মা ডাক-চিৎকার দেন। তার চিৎকার শুনে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে আসেন। পরে স্থানীয় লোকজন থানা পুলিশকে খবর দেন। খবর পেয়ে কালকিনি থানার এস আই কাঞ্চন মিয়া সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে নিহতের লাশ উদ্ধার করেন।

নিহত কলেজছাত্রীর মা মুক্তা বেগম দৈনিক প্রতিদিনের সংবাদ’কে বলেন, আমার মেয়ে জেবিন একটি মোবাইল কিনে দিতে বলেন। আমরা সেই মোবাইল কিনে দেইনি। তাই মনে হয় অভিমান করে আত্মহত্যা করেছে।

এ ব্যাপারে কালকিনি থানার ওসি মোঃ ইশতিয়াক আসফাক রাসেল বলেন, আমরা খবর পেয়ে নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরন করেছি।

সংবাদটি শেয়ার করুন...

Developed by: Engineer BD Network