বৃহস্পতিবার, ৯ ডিসেম্বর ২০২১, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, বিকাল ৩:৪২

বিরামপুরে পল্লীতে কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষণ ॥ মামলা দায়ের

আশরাফুল আলম, ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) থেকে : বিরামপুর উপজেলার চকহরিদাসপুর পূর্ব পাড়া গ্রামের কলেজ পড়ুয়া এক ছাত্রীকে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। বিরামপুর উপজেলার জোত জয়রামপুর গ্রামের লুৎফর রহমানের লম্পট পুত্র তুহিন (২০) ওই ছাত্রীকে ধর্ষণ করে। এঘটনায় বিরামপুর থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলা সূত্রে জানাগেছে, বিরামপুর সরকারি কলেজে দ্বাদশ শ্রেণির ওই ছাত্রীর সাথে এই কলেজের তুহিনের পরিচয় হয়। পরিচয়ের পর থেকে মোঃ তুহিন বিভিন্ন সময় তাকে বিবাহ করার প্রলোভন দিয়ে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে। সেই সুবাদে তুহিন ওই ছাত্রীর বাড়িতে গিয়ে শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তোলে। কিছু দিনের মধ্যে ওই ছাত্রী তুহিনকে বিবাহের চাপ দিলে সে আজ-কাল করে সময় ক্ষেপন করতে থাকে।

গত ৫ আগস্ট রাত সাড়ে ১১টার দিকে তুহিন পুনঃরায় ওই ছাত্রীর বাড়িতে যায় এবং আবারো ধর্ষণ করে। বিষয়টি নিয়ে ছাত্রীর মা স্থানীয় মহিলাদের নিয়ে ধর্ষক তুহিনের বাড়িতে গিয়ে লুৎফর রহমান ও তার মা ফেন্সিয়ারাকে অবহিত করে এবং ছাত্রীর সাথে বিয়ের অনুরোধ জানায়। কিন্তু তারা সময় ক্ষেপন করতে থাকায় গত ২১ আগস্ট কলেজ ছাত্রী তুহিনের বাড়িতে গিয়ে বিয়ের দাবী জানায়। এতে তুহিনের পিতা-মাতা ও আত্নীয় স্বজনরা ক্ষিপ্ত হয় এবং ছাত্রীকে বাড়ি থেকে বের করে দেয়।

বিয়টি নিয়ে ৭নং পলিপ্রাগপুর ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ রহমতের কাছে সমাধান চাইলে তিনি টাকা-পয়তা দিয়ে মীমাংসার কথা জানান। পরে ধর্ষিতা ও তার পরিবার গত ২৫ আগস্ট বিরামপুর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন।

এ বিষয়ে বিরামপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মনিরুজ্জামান জানান, কলেজ ছাত্রী ধর্ষনের ঘটনায় মামলা হয়েছে। দু’পক্ষের মধ্যে বিষয়টি নিয়ে মীমাংসা হওয়ার কথা ছিল। মেডিকেল রিপোর্ট পাওয়া গেছে, প্রয়োজনীয় আইনী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন...

Developed by: Engineer BD Network