বৃহস্পতিবার, ৯ ডিসেম্বর ২০২১, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, বিকাল ৪:৫৩

ঝিকরগাছা ও বাঁকড়ার বিভিন্ন ক্লিনিকে অভিযান, ছয়টি বন্ধের ঘোষনা

মোরশেদ আলম, যশোর থেকে : যশোরের সিভিল সার্জন ডাক্তার শেখ আবু শাহীনের নেতৃত্বে গত ২০ আগস্ট (বৃহস্পতিবার) ঝিকরগাছা উপজেলা শহর ও বাঁকড়ার ১২টি ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারে অভিযান পরিচালিত করেছে। ছয়টি প্রতিষ্ঠানকে বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। অন্য ছয়টি প্রতিষ্ঠানকে লাইসেন্স অনুমোদন দেয়ার জন্যে পরিদর্শন রিপোর্ট প্রদানের সিদ্ধান্ত হয়েছে। সিভিল সার্জন ডাক্তার শেখ আবু শাহীন জানিয়েছেন, ঝিকরগাছা উপজেলা শহরের মোহাম্মদ আলী ক্লিনিক এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার, সালেহা ক্লিনিক এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার, ফাতেমা ক্লিনিক, স্টার ডায়াগনস্টিক এবং বাঁকড়ার সায়েরা সার্জিক্যাল ল্যাবের লাইসেন্স প্রদানের জন্যে পরিদর্শন রিপোর্ট প্রেরণের সিদ্ধান্ত হয়েছে। তবে লাইসেন্স প্রাপ্ত না হওয়া পর্যন্ত তাদের প্যাথলজিক্যাল ল্যাবের সকল কার্যক্রম বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। একইসাথে এস এস ডায়াগনস্টিক ও জননী ডায়াগনস্টিক সেন্টার নামে দু’টি নতুন প্রতিষ্ঠানের লাইসেন্স না থাকায় সকল কার্যক্রম বন্ধ করা হয়েছে। সিভিল সার্জন আরও জানান, বাঁকড়ার একতা মেডিকেল সার্ভিস, বাঁকড়া সার্জিক্যাল এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার, স্টার ক্লিনিক এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার, পারবাজার সার্জিক্যাল ক্লিনিক এন্ড ডায়াগনস্টিক সেন্টার কোনো প্রকার অনুমোদন না নিয়ে পরিচালনা করার প্রমাণ পেয়ে কার্যক্রম বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। কপোতাক্ষ সার্জিক্যাল ক্লিনিক সংস্কার কাজ করার জন্য বন্ধ রয়েছে।অভিযানিক টিমে ছিলেন ঝিকরগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার হাবিবুর রহমান ও সিভিল সার্জন কার্যালয়ের প্রশাসনিক কর্মকর্তা আরিফুজ্জামান।

সংবাদটি শেয়ার করুন...

Developed by: Engineer BD Network