বুধবার, ৮ ডিসেম্বর ২০২১, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, সকাল ৮:২৮

পীরগঞ্জে সেতু নির্মানের দাবীতে মানববন্ধন

মোঃ আব্দুল করিম, পীরগঞ্জ (ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধি॥ ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জে লাচ্ছি নদীর উপর সেতু নির্মাণের দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচী পালিত হয়েছে। পীরগঞ্জ পৌরসভার গুয়াগাঁও এলাকায় এ কর্মসূচিতে চারটি গ্রামের বাসিন্দারা অংশ নেন।
লাচ্ছি নদীর ভাঙা সাঁকোর উপরে ঘণ্টাব্যাপী এ মানববন্ধন শুরু হয়। এতে স্থানীয় গুয়াগাঁও, পাড়িয়া, জাইকাপাড়া ও হঠাৎপাড়া গ্রামের দেড় শতাধিক বাসিন্দা অংশ নেন। কর্মসূচি চলাকালে তাঁরা ‘লাচ্ছি নদীর উপর সেতু চাই’ এ স্লোগানে এলাকা মুখরিত করে তোলেন।
মানববন্ধন চলাকালে বক্তব্য দেন ওই চার গ্রামের বাসিন্দা মো. মফিজউদ্দীন, আশরাফুল আলম, মো. নুরুজ্জামান, আজিজুল হক, আশিরউদ্দীন, মকশেদ আলী, মমিনুল ইসলাম ও আকাশ চন্দ্র রায় প্রমুখ। বক্তারা বলেন, লাচ্ছি নদীর উপর সেতু নির্মাণের বিষয়টি দুই পাড়ের ৫-৬টি গ্রামের বাসিন্দাদের দীর্ঘদিনের দাবি। এখানে সেতু না থাকায় গ্রামের স্কুল-কলেজ গামী শিক্ষার্থী, বিভিন্ন যানবাহন ও জনসাধারনকে ভাঙা সাঁকো দিয়ে ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করতে হয়। সম্প্রতি ওই সাঁকোর উপর থেকে পড়ে মো. সুলতান ও আকতারুল ইসলাম নামের দুজনের পা ভেঙে গেছে। সাঁকো থেকে নদীতে পড়ে গিয়ে আহত হয়েছে স্কুলছাত্রী কোহিনুর ও বিপাশা। আরও একাধিক দুর্ঘটনা ঘটেছে এই স্থানে।
এলাকাবাসীর সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, ২০০৩ সালে পীরগঞ্জ পৌরসভার উদ্যোগে লাচ্ছি নদীর হঠাৎপাড়া মোড়ে সাঁকোটি তৈরি করা হয়। ১৭ বছর আগের নির্মাণাধীন এই পুরাতন সাঁকোটির অবস্থা খুবই খারাপ হয়ে গেছে। পৌরসভার উদ্যোগে কয়েকবার মেরামত করা হলেও তা বেশি দিন টেকেনি। ফলে এখানে প্রায়ই দুর্ঘটনা ঘটছে। নড়বড়ে এ সাঁকোর উপর উঠলেই গা ছমছম করে। এলাকাবাসী সাঁকোটির জায়গায় একটি কংক্রিটের সেতু নির্মাণের দাবি জানিয়ে আসছেন। এ ব্যাপারে তাঁরা স্থানীয় সাংসদ ও পৌরসভার মেয়রের সঙ্গে দেখাও করেছেন। কিন্তু তাতে কোনো সুরহা না হওয়ায় এলাকাবাসী সেতুর দাবিতে রাস্তায় নেমেছেন।
পীরগঞ্জ পৌরসভার মেয়র কশিরুল আলম বলেন, ‘লাচ্ছি নদীর এই সেতু নিমার্ণে অন্তত দুই কোটি টাকার দরকার। এত টাকা খরচ করা পৌরসভার পক্ষে সম্ভব নয়। তবে আমি সংশ্লিষ্ট বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে বিষয়টি তুলে ধরব।’

সংবাদটি শেয়ার করুন...

Developed by: Engineer BD Network