বৃহস্পতিবার, ৯ ডিসেম্বর ২০২১, ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, বিকাল ৪:৫৫

গ্রামেগঞ্জে সুদের ব্যবসা রমরমা : আমিনুল ইসলাম

দেশের সর্বত্রই যেন অবৈধভাবে টাকা কামানোর প্রতিযোগিতা চলছে। এমন কোনো জায়গা নেই যেখানে অনিয়ম দুর্নীতির ছোঁয়া লাগেনি। রাজধানী থেকে শুরু করে গ্রাম শহর, তৃনমূল পর্যায়ে রন্ধে রন্ধে ছড়িয়ে পড়েছে দুর্নীতির কালো থাবা। কিভাবে এ থেকে মুক্তি পাবে এই স্বার্বভৌম বাংলাদেশ। গ্রামের বাড়িতে গিয়ে দেখা গেল, ‘দুর্নীতিগ্রস্ত ব্যক্তি, সুদের ব্যবসা করে অথচ মোটরসাইকেল নিয়ে প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়ায় কেউ তার প্রতিবাদ করেন না।’ তরুন প্রজন্মের ছেলেরা মাদকাসক্ত ও বিভিন্ন অসামাজিক কার্যকলাপে জড়িয়ে যাচ্ছে। এদেরকে প্রশ্রয় দিচ্ছে কিছু অসাধু ও স্বার্থলোভী মানুষ। গ্রামের সাধারণ মানুষ এই সকল দুর্নীতিবাজ ও সুদখোরদের কাছে জিম্মি হয়ে যাচ্ছে।

বাস্তব অভিজ্ঞতার কথা বলছি, অনেক দিন পর গ্রামের বাড়িতে যাই। দেখি যাদের সমাজ গঠনে হাল ধরার কথা তাদের ছেলেরোই বিভিন্ন কায়দায় দুর্নীতি করে, সুদের ব্যবসা করে, আঙুল ফুলে কলা গাছ হচ্ছে। শুধু তাই নয় তারা একটা নেটওয়ার্ক তৈরি করে গ্রামের বিচার-শালিস করছে এবং তাদেরই দল ভারি করছে। এই জন্য লেখলাম, বর্তমানে ডিজিটাল বাংলাদেশে সুদের ব্যবসা ও মহাজনী প্রভা এখনও চলছে। বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্যোগে মহাজনী প্রথা বন্ধ করার জন্য, বিভিন্ন প্রকল্প গ্রহণ করছে। যেমন- পল্লীসঞ্চয় ব্যাংক, কর্মসংস্থান ব্যাংক, আমার বাড়ি আমার খামার, যুব উন্নয়নসহ অনেক প্রতিষ্ঠান আছে যারা বিনা জামানতে তরুণ সমাজ তথা সাধারণ মানুষকে ঋণ দিয়ে সহযোগিতা করছে। যেন মহাজনী প্রথা থেকে মানুষ বেড়িয়ে আসতে পারে কিন্তু বাস্তবে সেটা সম্ভব হচ্ছে না। সাধারণ মানুষের রক্ত চুষে খাচ্ছে এক শ্রেনীর মানুষ। তারাই হলো দুর্নীতিবাজ মহাজন ও সুদখোর। এদের থেকে রক্ষা পেতে সচেতন নাগরিকদের এগিয়ে আসতে হবে প্রশাসনকে। ধরিয়ে দিতে হবে এই লুটেরাদের। তৃণমূল থেকে শুরু করে কেন্দ্রিয় পর্যায় পর্যন্ত এদের দৌরাত্ম ভেঙ্গে দিতে হবে। তাহলেই বাঁচবে সমাজ, বাচবে দেশ। বিদায় হবে দুর্নীতি, মুক্ত হবে সাধারণ মানুষ, বাস্তবায়ন হবে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলাদেশ।

সংবাদটি শেয়ার করুন...

Developed by: Engineer BD Network