বুধবার, ৮ ডিসেম্বর ২০২১, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, সকাল ৯:১৪

বনভূমি রক্ষা করতে গিয়ে সন্ত্রাসী হামলার শিকার ৫ কর্মকর্তা

ঢাকা ব্যুরো: সাভারে সরকারি বনভূমি রক্ষা করতে গিয়ে বন বিভাগের এক কর্মকর্তাসহ পাঁচজন সন্ত্রাসী হামলার শিকার হয়েছেন বলে জানা গেছে। গতকাল সোমবার দুপুরে বিরুলিয়া ইউনিয়নের ছোট কালিয়াকৈর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

হামলায় আহতদের মধ্যে একজনকে গুরুতর অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে জানিয়েছে সংশ্লিষ্টরা। আহতরা হলেন– সহকারী বন সংরক্ষক মো. সাজেদুল আলম (৫৫), বনপ্রহরী ইমরান (৩৮), ফরেস্টার দিলীপ মজুমদার (৪৫), মনির (২৮) ও ইমরান (২৫)।

সাভার সাব বিট কর্মকর্তা মো. মোশারফ হোসেন জানান, বন বিভাগের জমি দখল করে দীর্ঘদিন ধরেই বিভিন্ন স্থাপনা তৈরি করে আসছিল স্থানীয় মো. কামরুল ইসলাম, আল আমিনসহ একটি ভূমিদস্যু চক্র। সোমবার দুপুরেও চারাগাছ নষ্ট করে ভেকু দিয়ে সেখানে মাটি কাটছিল চক্রের সহযোগীরা। তাদের বাধা দেওয়ায় রামদা ও রডসহ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে বনবিভাগের লোকজনের ওপর হামলা চালায় ৩০-৪০ জনের একটি দল।

এ সময় সহকারী বন সংরক্ষক সাজেদুল আলমকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা করে সন্ত্রাসীরা। এছাড়া বনপ্রহরী ইমরান, ফরেস্টার দিলীপকে রড দিয়ে পিটিয়ে আহত করে এবং তাদের কাছে থাকা আগ্নেয়াস্ত্র ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে তারা। আত্মরক্ষার্থে নিরাপত্তাকর্মীরা কয়েক রাউন্ড ফাঁকা গুলি চালালে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়।

হামলার কথা অস্বীকার করে কামরুল ইসলাম বলেন, ‘আমরা সরকারি জমি ভূমি সংস্কার বোর্ড থেকে লিজ নিয়ে সেখানে স্থাপনা নির্মাণ করেছিলাম। কিন্তু বন বিভাগের লোকজন আমাদের ঘরবাড়ি উচ্ছেদ করে দেয়। গতকাল দুপুরে তাদের ছোড়া গুলিতে হামলায় আমাদের দুজন আহত হয়।’

ঢাকা বনবিভাগের কালিয়াকৈর রেঞ্জ কর্মকর্তা একেএম আজহারুল ইসলাম বলেন, ‘সরকারি জমি রক্ষার্থে এখন পর্যন্ত ১৩ বার অভিযান চালানো হয়েছে এবং বেশ কয়েকটি মামলাও হয়েছে।’

সাভার থানার ওসি এএফএম সায়েদ জানান, এ ঘটনায় পাঁচজনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত ৪০-৫০ জনকে আসামি করে মামলা হয়েছে। আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন...

Developed by: Engineer BD Network