শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ৩১ আশ্বিন ১৪২৮, সকাল ৬:০৪
শিরোনাম :
বঙ্গবন্ধুর জন্ম হয়েছিলো বলেই আমরা বাংলাদেশ পেয়েছি – ড. হারুন অর রশিদ বিশ্বাস মুলাদীতে শারদীয় দুর্গোৎসবে আইন শৃঙ্খলা রক্ষায় পুলিশের মতবিনিময় খুলনায় স্বদেশ ইসলামী লাইফের বিশেষ উন্নয়ন সভা ঢাকা এঞ্জেল লায়ন্স ক্লাবের উদ্যোগে বৃক্ষরোপন, খাদ্য ও মাস্ক বিতরন ৪ শতাংশ সুদে ঋণ দেবে লংকাবাংলা ফাইন্যান্স টাঙ্গাইল জেলা যুবলীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত মার্কেন্টাইল ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্স এর রাজশাহী বিভাগের উন্নয়ন সভা এনআরবি ইসলামিক লাইফের ব্যবসা উন্নয়ন সভা অনুষ্ঠিত মুজিববর্ষ বধির দাবা প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ এনআরবি গ্লোবাল লাইফ ইন্স্যুরেন্সের ৮ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত

কুড়িগ্রামে সুপেয় পানির সংকট

গণবার্তা রিপোর্ট: কুড়িগ্রামে বন্যা পরিস্থিতি অপরিবর্তিত রয়েছে। প্রায় ১ সপ্তাহ পর রোদের দেখা মিলেছে। ভেজা কাপড়-চোপড় শুকানোর সুযোগ পেয়েছেন বানভাসীরা। এক বেলা পানি কমে তো আরেক বেলায় বাড়ে। তবে ব্রহ্মপুত্র, তিস্তা, ধরলা ও দুধকুমার নদের পানি এখনো বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

জেলা ত্রাণ শাখার হিসাবে, মঙ্গলবার পর্যন্ত ২ লাখ ৩০ হাজার মানুষ পানিবন্দি রয়েছে। ৫৫ হাজার ঘর-বাড়ি বিধ্বস্ত হয়েছে। ৮ হাজার হেক্টর জমির ফসল সম্পূর্ণ নষ্ট হয়ে গেছে। ১৩২ টি আশ্রয় কেন্দ্রে ৩ হাজার ৯শ’ পরিবার আশ্রিত আছে। ৩৫ হাজার নলকূপ নষ্ট হয়ে গেছে। বেসরকারি হিসাবে সেটা প্রায় ৬০ হাজার। চারিদিকে এখন খাদ্য আর বিশুদ্ধ পানির জন্য হাহাকার। অনেকে বৃষ্টিতে কাকভেজা হয়ে দূর দূরান্ত থেকে পানি বয়ে আনছেন।

এদিকে পানিবন্দি অবস্থায় ২৭ দিন পার করলো কুড়িগ্রামের প্রায় আড়াইলাখ বানভাসী। চিলমারী উপজেলার বালাবাড়িতে একাত্তরের রণাঙ্গনের ‘সম্মুখ সমরের স্মৃতিসৌধ’ আছে। সেখানে আশ্রয় নেওয়া বানভাসী কৃষক নূর ইসলাম প্রশ্ন করে বলেন, একজন ক্ষুদ্র কৃষকের গাঁটে কয় টাকা থাকে। তা দিয়ে কতদিন পেট চালানো যায়?

একই উপজেলার রমনা চিলমারী বন্দর সড়কে আশ্রয় নেওয়া আশরাফ মিয়া বলেন, পুঁজি-পাট্টা যা ছিল মেষ। কেউ দয়া করে খাবার দিলে খাই। না হলে উপোষ। তবে বাঁধের রাস্তায় থাকা যাদের মজুদে একটু খাবার আছে, তারা ছাউনিতে রান্না হলে- খাবার দেওয়ার চেষ্টা করে।

সরেজমিন খোঁজ নিয়ে দেখা গেছে, বানভাসী মানুষের ঘরে খাবার ও টাকার সঞ্চয় শেষ।

জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে নতুন কোনো ত্রাণের বরাদ্দ দেওয়া হয় নাই বলে জানিয়েছে জেলা ও ত্রাণ ও পুনর্বাসন শাখা।

সংবাদটি শেয়ার করুন...

Developed by: Engineer BD Network