শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ৩১ আশ্বিন ১৪২৮, দুপুর ১২:৩০
শিরোনাম :
বঙ্গবন্ধুর জন্ম হয়েছিলো বলেই আমরা বাংলাদেশ পেয়েছি – ড. হারুন অর রশিদ বিশ্বাস মুলাদীতে শারদীয় দুর্গোৎসবে আইন শৃঙ্খলা রক্ষায় পুলিশের মতবিনিময় খুলনায় স্বদেশ ইসলামী লাইফের বিশেষ উন্নয়ন সভা ঢাকা এঞ্জেল লায়ন্স ক্লাবের উদ্যোগে বৃক্ষরোপন, খাদ্য ও মাস্ক বিতরন ৪ শতাংশ সুদে ঋণ দেবে লংকাবাংলা ফাইন্যান্স টাঙ্গাইল জেলা যুবলীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত মার্কেন্টাইল ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্স এর রাজশাহী বিভাগের উন্নয়ন সভা এনআরবি ইসলামিক লাইফের ব্যবসা উন্নয়ন সভা অনুষ্ঠিত মুজিববর্ষ বধির দাবা প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ এনআরবি গ্লোবাল লাইফ ইন্স্যুরেন্সের ৮ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত

আগস্টের শেষ সপ্তাহে ঢাকা-৫ ও পাবনা-৪ আসনে ভোটের তফসিল

গণবার্তা রিপোর্ট: নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিব মো. আলমগীর বলেছেন, আগস্টের শেষ সপ্তাহে পাবনা-৪ ও ঢাকা-৫ আসনের উপ-নির্বাচনের তফসিল দেওয়া হবে। সে সময় অনুষ্ঠেয় বৈঠকে সিরাজগঞ্জ-১ আসনের উপ-নির্বাচন নিয়েও আলোচনা হবে। তবে ঢাকা-১৮ আসনের উপ-নির্বাচনের সিদ্ধান্ত আরো পরে হবে। সোমবার (২০ জুলাই) বিকেলে নির্বাচন ভবনে নিজ দফতরে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এসব তথ্য জানান তিনি।

মো. আলমগীর বলেন, ৬৩তম কমিশন বৈঠক ছিল আজ। আপাতত কোনো নির্বাচনের সিদ্ধান্ত হয়নি। ঢাকা-৫ ও পাবনা-৪ আসনের ভোট করোনার কারণে আগেই পিছিয়ে দেওয়া হয়েছিল। প্রধান নির্বাচন কমিশনার তার হাতে থাকা নব্বই দিন সময়ের মধ্যে ভোটের সিদ্ধান্ত দিয়েছিলেন। সেই মেয়াদ শেষ হবে যথাক্রমে ১ নভেম্বর ও ২৮ সেপ্টেম্বর।

‘যেহেতু দেশে বর্তমানে করোনা পরিস্থিতি চলমান, তাই আপাতত ভোট হচ্ছে না। আগস্টের শেষ সপ্তাহে কমিশন বৈঠকে এই দুই আসনের ভোটের সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। এছাড়া সিরাজগঞ্জ-১ আসনেও পরবর্তী নব্বই দিনের মধ্যে ভোটের সিদ্ধান্ত দিয়েছেন কমিশন। এ আসনের ভোটও কবে হবে, তা নিয়ে আগস্টের শেষ সপ্তাহের কমিশন বৈঠকে আলোচনা হবে। এ ক্ষেত্রে আগামী ৯ ডিসেম্বর পর্যন্ত এ আসনে ভোটের সময় পাওয়া যাবে। অন্যদিকে ঢাকা-১৮ আসনটি সম্প্রতি শূন্য হয়েছে। এই আসনের ভোটের জন্য এমনিতেই ৬ অক্টোবর পর্যন্ত সময় আছে। পরবর্তী নব্বই দিনেও ভোট করলে ১৪ জানুয়ারি পর্যন্ত সময় আছে। কাজেই এ নির্বাচন নিয়ে পরবর্তীতে সিদ্ধান্ত হবে। ’

গত ৬ মে বার্ধক্যজনিত কারণে হাবিবুর রহমান মোল্লা মৃত্যুবরণ করলে ঢাকা-৫ আসনটি শূন্য হয়। এছাড়া ২ এপ্রিল সাবেক ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ ডিলু ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেলে পাবনা-৪ আসনটি শূন্য হয়। অন্যদিকে সিরাজগঞ্জ-১ আাসনটি শূন্য হয় সাবেক সংসদ্য মোহাম্মদ নাসিম গত ১৩ জুন মারা গেলে। আর গত ৯ জুলাই অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুন থাইল্যান্ডের একটি হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করলে শূন্য হয় ঢাকা-১৮ আসন।

সংবাদটি শেয়ার করুন...

Developed by: Engineer BD Network