শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ৩১ আশ্বিন ১৪২৮, ভোর ৫:১১
শিরোনাম :
বঙ্গবন্ধুর জন্ম হয়েছিলো বলেই আমরা বাংলাদেশ পেয়েছি – ড. হারুন অর রশিদ বিশ্বাস মুলাদীতে শারদীয় দুর্গোৎসবে আইন শৃঙ্খলা রক্ষায় পুলিশের মতবিনিময় খুলনায় স্বদেশ ইসলামী লাইফের বিশেষ উন্নয়ন সভা ঢাকা এঞ্জেল লায়ন্স ক্লাবের উদ্যোগে বৃক্ষরোপন, খাদ্য ও মাস্ক বিতরন ৪ শতাংশ সুদে ঋণ দেবে লংকাবাংলা ফাইন্যান্স টাঙ্গাইল জেলা যুবলীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত মার্কেন্টাইল ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্স এর রাজশাহী বিভাগের উন্নয়ন সভা এনআরবি ইসলামিক লাইফের ব্যবসা উন্নয়ন সভা অনুষ্ঠিত মুজিববর্ষ বধির দাবা প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ এনআরবি গ্লোবাল লাইফ ইন্স্যুরেন্সের ৮ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত

করোনা টেস্ট শুরু করছে আইসিডিডিআর,বি

বাসস : আন্তর্জাতিক উদরাময় গবেষণা কেন্দ্র, বাংলাদেশ (আইসিডিডিআর,বি) এর ডায়াগনস্টিক সেন্টার করোনা সন্দেহভাজন রোগীদের টেস্ট শুরু করছে। রাজধানীর মহাখালীতে অবস্থিত আইসিডিডিআর,বি-র ডায়াগনস্টিক সেন্টারে আগামী ২৬ জুন শুক্রবার থেকে টেস্ট কার্যক্রম শুরু হবে বলে আজ এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।
বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, প্রাথমিক পর্যায়ে, টেস্টের জন্য রোগীদের যঃঃঢ়://পড়ারফ১৯ঃবংঃ.রপফফৎন.ড়ৎম এই ওয়েবসাইট ভিজিট করে নিবন্ধন ফর্ম পূরণের মাধ্যম্যে অ্যাপয়েন্টমেন্ট নিশ্চিত করা যাবে। টেস্টের ফি ডেবিট/ক্রেডিট কার্ড অথবা অনলাইন ব্যাঙ্কিং/মোবাইল ব্যাঙ্কিং-এর মাধ্যমে জমা দেয়া যাবে। এই ওয়েব অ্যাপ্লিকেশনটি আজ সন্ধ্যা ৬টার সময় নিবন্ধনের জন্য উন্মুক্ত হবে।
প্রতি টেস্টের খরচ সর্বসাকুল্যে সাড়ে ৩ হাজার টাকা। টেস্টের জন্য ব্যক্তির গলা এবং নাকের গভীর থেকে শ্লেষ্মা সংগ্রহ করা হবে। প্রতিদিন সকাল ৭টা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত নমুনা সংগ্রহ করা হবে এবং পরবর্তী ২৪ থেকে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে রিপোর্ট প্রদান করা হবে বলেও জানানো হয়।
এই উপলক্ষে আইসিডিডিআর,বি-র ল্যাবরেটরি সায়েন্সেস অ্যান্ড সার্ভিসেস ডিভিশনের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক ড. দীনেশ মন্ডল বলেন, ‘আমাদের রোগীদের এবং কর্মীদের নিরাপত্তা সবচেয়ে অগ্রগণ্য বিষয় এবং তাই কোভিড-১৯ রোগীদেরকে উন্নত মানের সেবা প্রদান করার জন্য ডায়াগনস্টিক সেন্টারটিকে পুনঃসংস্কার করেছি। প্রাথমিক পর্যায়ে অনলাইন রেজিস্ট্রেশনের মাধ্যমে টেস্টের প্রক্রিয়া চালু করলেও পরবর্তী পর্যায়ে এটিকে সমাজের সর্বস্তরের মানুষের জন্য আরো সহজতর প্রক্রিয়ায় রূপান্তরিত করা হবে।
তিনি বলেন, আমাদের অত্যন্ত দক্ষ ও নিষ্ঠাবান বিজ্ঞানী ও চিকিৎসক এবং অত্যাধুনিক ল্যাবরেটরিসমূহ এখন থেকে রোগীদেরকে উচ্চমানসম্পন্ন রোগনির্ণয় সেবা প্রদান করতে সক্ষম হবে, যার ওপর তারা সব সময়ই আস্থা রেখে এসেছেন।
রোগীর সাথে কেবলমাত্র একজন ব্যক্তি টেস্টের জন্য নির্ধারিত স্থানে যেতে পারবেন। তাদের উভয়কে অবশ্যই মুখে মাস্ক পরতে হবে সরকারের স্বাস্থ্যবিধি-সংক্রান্ত নির্দেশনাসমূহ যথাযথভাবে মেনে চলতে হবে বলেও তিনি জানান।

সংবাদটি শেয়ার করুন...

Developed by: Engineer BD Network