রবিবার, ১১ এপ্রিল ২০২১, ২৮ চৈত্র ১৪২৭, সকাল ৮:০৪
শিরোনাম :
মুলাদীতে থানা পুলিশের উদ্যোগে মাস্ক বিতরণ শিশুদের জীবনকে আলোকিত ও সুন্দর হিসেবে গড়ে তুলুন : প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও কর্ম থেকে রাজনীতিবিদদের শিক্ষা নেয়ার আহ্বান রাষ্ট্রপতির বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে দশ দিনের কর্মসূচি আজ থেকে শুরু মুলাদীতে শিশুদের জন্য ব্যতিক্রম কর্মসূচি ‘রং তুলিতে বঙ্গবন্ধু’ বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ স্বাধীনতা সংগ্রামের বীজমন্ত্র ৭ই মার্চের ভাষণে নিরস্ত্র বাঙালি সশস্ত্র বাঙালিতে পরিণত হয়েছিলো: তথ্য মন্ত্রী করোনা মোকাবিলায় শীর্ষ তিনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকার দক্ষ জনশক্তি গড়ে তুলতে শিক্ষাকে বহুমাত্রিক করতে কাজ করছে : প্রধানমন্ত্রী গবেষণা ও বিজ্ঞানের বিবর্তন দেশের উন্নয়নে অপরিহার্য : প্রধানমন্ত্রী

ম্যানেজমেন্ট অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ এর বঙ্গবন্ধুর শিক্ষা ভাবনা শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠান

গণবার্তা রিপোর্ট : ম্যানেজমেন্ট অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ এর উদ্যোগে ২৮ আগস্ট ২০২০ ‘বঙ্গবন্ধুর জীবন ও শতবর্ষে বঙ্গবন্ধু: বাংলাদেশের শিক্ষা ভাবনা’ বিষয়ে ভার্চুয়াল আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন দুর্নীতি দমন কমিশনের কমিশনার ড. মো. মোজাম্মেল হক খান। বিশেষ অতিথি ছিলেন মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক প্রফেসর ড. সৈয়দ মোহাম্মদ গোলাম ফারুক। আলোচক ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা বিভাগের অধ্যাপক ও সিনেট সদস্য প্রফেসর আলী আক্কাস, পাবলিক প্রাইভেট পার্টনারশিপ কর্তৃপক্ষের মহাপরিচালক ও অতিরিক্ত সচিব ফারুক আহমেদ, সরকারি তিতুমীর কলেজের অধ্যক্ষ মো. আশরাফ হোসেন, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার অধ্যাপক ড. কামালউদ্দীন আহমদ, বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ও বঙ্গবন্ধু গবেষক ড. সিরাজুল ইসলাম, জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডের সদস্য (পাঠ্যপুস্তক) মো. ফরহাদুল ইসলাম ও সচিব প্রফেসর ড. মো. নিজামুল করিম। ইডেন মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর সুপ্রিয়া ভট্টাচার্যের সভাপতিত্বে আলোচনা অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ ও ভারতের বিপুলসংখ্যক শিক্ষক, গবেষক ও শিক্ষানুরাগী ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।
সরকারি তিতুমীর কলেজের সহযোগী অধ্যাপক মো. সালাহ উদ্দীনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভা শুরু হয় ঢাকা কমার্স কলেজের সহযোগী অধ্যাপক এস এম আলী আজম এর স্বাগত ভাষণের মধ্য দিয়ে। এরপরে দেশ-বিদেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ব্যবস্থাপনা বিশারদ, শিক্ষক ও গবেষকগণ উপস্থিত থেকে আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন। সভায় শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন টাঙ্গাইল সরকারি মুজিব কলেজের অধ্যক্ষ ড. সদরুউদ্দিন আহমেদ, কবি নজরুল সরকারি কলেজের সহযোগী অধ্যাপক ড. সিরাজুল রাসুল, সরকারি তিতুমীর কলেজের সহকারী অধ্যাপক রাকিবুল হক মুন্সী প্রমুখ। অনুষ্ঠানে বঙ্গবন্ধুকে স্মরণ করে আবৃত্তি করেন সরকারি তিতুমীর কলেজের দর্শন বিভাগের প্রধান প্রফেসর নাসিমা আক্তার চৌধুরী এবং সংগীত পরিবেশন করেন ইডেন মহিলা কলেজের সহকারী অধ্যাপক আফসানা সরওয়ার।
অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন ডীন প্রফেসর ড. ফেরদৌসী বেগম, সরকারি তিতুমীর কলেজের ব্যবস্থাপনা বিভাগের প্রধান প্রফেসর সাইফুল হক, প্রফেসর মো. ময়েজ উদ্দিন, প্রফেসর ড. সৈয়দা শাহনাজ বেগম ও এম এম আতিকুজ্জামান, সরকারি বাংলা কলেজের প্রফেসর আনম শাহাদাত হোসেন ও এস এম মাহাবুবুল ইসলাম, ইডেন মহিলা কলেজের প্রফেসর সুফিয়া আক্তার, প্রফেসর অঞ্জলি বড়ুয়া, দেবাশীষ সাহা ও মো. নুরুল হক, সিরাজগঞ্জ রাশিদুজ্জোহা মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মো. মিজানুর রহমান, ক্রাউন কলেজের অধ্যক্ষ আব্দুলাহ আল মামুন, ঢাকা সিটি কলেজের প্রফেসর মো. আতাউর রহমান, ব্রাহ্মণবাড়িযা সরকারি কলেজের সহযোগী অধ্যাপক খোন্দকার মিজানুর রহমান ও মো. খালেদ খান, ঢাকা কমার্স কলেজের সহযোগী অধ্যাপক মো. শরিফুল ইসলাম, ঢাকা কলেজের সহকারী অধ্যাপক নাসরিন আক্তার, সরকারি আজম খান কমার্স কলেজ সহকারী অধ্যাপক এম এম নুরুল কবির প্রমুখ। আলোচনা অনুষ্ঠানে ভারতের বিভিন্ন কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও গবেষকগণের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন অধ্যক্ষ ড. নাজিবুর রহমান, ড. হিমব্রত দাস, ড. কুহেলি বিশ্বাস, ড. সান্তনু গের, ড. ভাস্বতী দে, ওসমান গনি, মীনাক্ষী চক্রবর্তী, আপরী দত্ত ও সনহিতা রায়।
আলোচনা সভা ছিল ব্যবস্থাপনা বিশারদ, শিক্ষক ও গবেষকদের সমাবেশ যেখানে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার বিশিষ্টজন অংশগ্রহণ করে শিক্ষা পরিকল্পনা ও উন্নয়নে বঙ্গবন্ধুর অবদানকে স্মরণ করেন এবং বঙ্গবন্ধুকে একজন দূরদর্শী জাতীয় নেতা হিসেবে তার ইতিবাচক কার্যক্রমকে বিশ্লেষণ করেছেন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ড. মোজাম্মেল হক খান বঙ্গবন্ধুর অসামান্য অবদানকে স্মরণ করে বঙ্গবন্ধুর শিক্ষা ভাবনার অসংখ্য উদাহরণ তুলে ধরেন। তিনি বঙ্গবন্ধুকে কেবল বাংলার বন্ধুর মধ্যে সীমাবদ্ধ না রেখে একজন প্রকৃত বিশ্বনেতা ও বিশ্ববন্ধু হিসেবে আখ্যায়িত করেন।
মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক প্রফেসর ড. সৈয়দ মো. গোলাম ফারুক বঙ্গবন্ধুর মানবিক, সৃষ্টিশীল ও দক্ষ শিক্ষা ব্যবস্থাপনার বিষয়ে আলোকপাত করেন। প্রফেসর আলী আক্কাস, প্রফেসর ড. কামালউদ্দিন আহমদ, প্রফেসর ড. সিরাজুল ইসলাম, পিপিপি কতৃপক্ষের মহাপরিচালক ফারুক আহমেদ, এনসিটিবির প্রফেসর ড. নিজামুল করিম বঙ্গবন্ধুর জীবন ও আদর্শের নানা দিক তুলে ধরে বঙ্গবন্ধুকে একজন আদর্শ মানুষ হিসেবে উপস্থাপন করেন এবং দেশকে সত্যিকারের সোনার বাংলা হিসাবে গড়ে তুলতে হলে বঙ্গবন্ধুকে অনুসরণ করতে হবে বলে মতামত দেন।
সবশেষে সরকারি তিতুমীর কলেজের সহকারী অধ্যাপক মুহাম্মদ মাহাবুবুল ইসলাম বঙ্গবন্ধুর রুহের মাগফিরাত কামনা দোয়া মোনাজাত পরিচালনা করেন।

Developed by: NEXTZEN LIMITED